অ্যান্ড্রয়েড 11 এর নতুন ভার্সনে যা যা থাকছে - [২০২০]

হ্যালো বন্ধুরা। কেমন আছো তোমরা। আশা করি তোমরা সবাই আগের মতো ভালো আছো। বন্ধুরা আজকে আমরা একটু অন্যরকম টপিক নিয়ে আলোচনা করবো। বন্ধুরা তোমরা প্রায় সবাই অ্যান্ড্রয়েড ফোন ব্যবহার করে থাকো। আর বর্তমানে অ্যান্ড্রয়েড ফোন গুলো কম্পিউটার থেকেও স্মার্ট হয়ে যাচ্ছে। আর তার সাথে গুগোল অ্যান্ড্রয়েড 11 ভার্সন রিলিজ করে অ্যান্ড্রয়েড ফোনকে আরো স্মার্ট করে দিয়েছে। হা বন্ধুরা ঠিকই শুনেছো। অ্যান্ড্রয়েড 11 ভার্সন রিলিজ হয়ে গেছে।কিছুদিন আগেও অ্যান্ড্রয়েডের জন্য সবথেকে লেটেস্ট যে ভার্সনটি সেটি ছিল অ্যান্ড্রয়েড 10। আর এখন গুগোল অ্যান্ড্রয়েড 11 ভার্সন রিলিজ করে দিয়ে অ্যান্ড্রয়েডকে করে দিয়েছে আরো স্মার্ট।

এবার অ্যান্ড্রয়েড 11 ভার্সনের মধ্যে চমৎকার সব ফিচার যুক্ত করা হয়েছে। আর ওসব ফিচারগুলো যদি তোমরা দেখো তাহলে তোমাদের এখনই অ্যান্ড্রয়েড 11 ভার্সন এর অ্যান্ড্রয়েড ফোন গুলো চালাতে মন চাইবে। তাহলে চলো বন্ধুরা আমরা এখন একবার জেনে নেই অ্যান্ড্রয়েড 11 ভার্সন এর মধ্যে কি কি ফিচার রয়েছে। আর সে সকল ফিচারগুলো সম্পর্কে ভালোভাবে জেনে নেই। যেনো পরবর্তীতে আমাদের অ্যান্ড্রয়েড 11 ভার্সন এর অ্যান্ড্রয়েড ফোনগুলো চালাতে কোন রকম সমস্যা না হয়। তাহলে চলো বন্ধুরা বেশি কথা না বলে শুরু করি।

স্ক্রিন রেকর্ডিং অ্যান্ড্রয়েড 11 ভার্সনে

বন্ধুরা অনেক সময় আমাদের অ্যান্ড্রয়েড ফোনে স্ক্রিন রেকর্ড করার জন্য আমরা আলাদা ভাবে বিভিন্ন ধরনের অ্যাপ ডাউনলোড করতাম প্লে স্টোর থেকে। কিন্তু অনেকদিন ধরে শুনে আসছিলাম যে অফিশিয়াল ভাবে স্ক্রিন রেকর্ডিং অপশন দিবে অ্যান্ড্রয়েডের মধ্যে।

অবশেষে অফিশিয়ালি ভাবে স্কিন রেকর্ডিং যুক্ত করা হয়েছে অ্যান্ড্রয়েড 11 ভার্সন এর মধ্যে। আর সেই স্ক্রিন রেকর্ড দিয়ে তোমরা অনেক সহজেই অ্যান্ড্রয়েডের স্ক্রিন রেকর্ড করতে পারবে। কোন প্রকার এপ্লিকেশন ডাউনলোড করতে হবে না। 

চ্যাট বাবল থাকছে অ্যান্ড্রয়েড 11 ভার্সনে

অ্যান্ড্রয়েড 11 ভার্সন এর মধ্যে সবথেকে চমৎকার ফিচারটি সেটি হচ্ছে চ্যাট বাবল। বন্ধুরা তোমরা যখন মেসেঞ্জার ব্যবহার করতে তখন মেসেঞ্জারটি চ্যাট হেড করে রাখতে। অর্থাৎ তোমাদের অ্যান্ড্রয়েড এর ডিসপ্লের সাইড দিয়ে তোমাদের মেসেঞ্জারের চ্যাট কনভারসেশন গুলো বাবল হইয়ে আসতো। এতদিন এই সুবিধাটা শুধু মেসেঞ্জার এর মধ্যে পাওয়া যেতো।

কিন্তুু এখন অ্যান্ড্রয়েড 11 ভার্সন এর মধ্যে সকল চ্যাটিং অ্যাপ্লিকেশনের মধ্যে এনেবেল করে দেওয়া হয়েছে। অর্থাৎ সকল চ্যাটিং অ্যাপ্লিকেশন বলতে গুগলের অফিসিয়াল অ্যাপ্লিকেশন কথা বুঝিয়েছে। অর্থাৎ গুগলের চ্যাটিং অ্যাপ্লিকেশনগুলোর মধ্যে তোমরা মেসেঞ্জার এর মতো বাবল অপশনটি পাবে। তবে আস্তে আস্তে অন্যান্য অ্যাপ গুলোর মধ্যে এই অপশনটি দেওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

মিউজিক কন্ট্রোলার থাকছে স্ট্যাটাস বারে


বন্ধুরা তোমাদের মধ্যে অনেকেরই মিউজিক শুনতে খুবই ভালো লাগে। এমন অনেক মানুষ আছে যারা মোবাইলে মিউজিক চালু করে রেখে সারাদিনই মিউজিক শুনে। কিন্তু মিউজিক চেঞ্জ করার জন্য তোমাদেরকে আবার মিউজিক অ্যাপস এর মধ্যে ঢুকে তারপর চেঞ্জ করতে হয়। এটা অনেকটা বিরক্তিকর লাগে অনেকের কাছে। কারণ বারবার অ্যাপস এর মধ্যে ঢুকে অন্য মিউজিক সিলেক্ট করে শুনতে হয়। কিন্তু এবার অ্যান্ড্রয়েড 11 ভার্সন এর মধ্যে মিউজিক কন্ট্রোলার অ্যান্ড্রয়েডের স্ট্যাটাস বারের মধ্যে দিয়ে দিয়েছে। আর যার ফলে তোমাদেরকে প্রতিবার মিউজিক অ্যাপস এর মধ্যে ঢুকে মিউজিক চেঞ্জ করতে হবে না। তোমরা স্ট্যাটাস বার থেকে পুরো মিউজিক অ্যাপসটা কে কন্ট্রোল করতে পারবে। আর এই সুবিধাটা সকল মিউজিক অ্যাপস এর মধ্যে পাবে।

পারমিশন পরিবর্তন অ্যান্ড্রয়েড 11 ভার্সনে

বন্ধুরা তোমরা যখন তোমাদের অ্যান্ড্রয়েড ফোনের মধ্যে নতুন কোন অ্যাপস ইন্সটল করে চালু করো তখন সেই অ্যাপস তোমাদের কাছ থেকে কিছু পারমিশন চায়। যেমন তোমাদের স্টোরেজের পারমিশন চায় আবার তোমাদের গ্যালারি পারমিশন চায়। এই পারমিশন গুলো দেওয়া আমাদের জন্য অনেকটাই ক্ষতিকর। এতদিন যত অ্যান্ড্রয়েড ভার্সন গুলো বের হয়ে এসেছে সবগুলো মধ্যেই পারমিশনের অপশন একই রকম ছিল।তোমরা যে অ্যাপের মধ্যে পারমিশন একবার দিবে সে অ্যাপে পারমিশন নিজে থেকে বন্ধ না করা পর্যন্ত সেই পারমিশন গুলো বন্ধ হয়না।

তাই এইবার গুগল তার অ্যান্ড্রয়েড 11 ভার্সন এর মধ্যে এই পারমিশনের বড় একটা পরিবর্তন নিয়ে এসেছে। অ্যান্ড্রয়েড 11 ভার্সন এর মধ্যে যেকোনো অ্যাপ এর মধ্যেই পারমিশন একবার দেওয়ার সুবিধা দিবে। অর্থাৎ বন্ধুরা তোমরা যখন একটি অ্যাপের মধ্যে পারমিশন দিবে তখন সেই অ্যাপটি যদি ব্যাকগ্রাউন্ড থেকে মুছে ফেলো তাহলে সেই অ্যাপ এর সকল পারমিশন মুছে যাবে। তারপর এটি যদি আবার ওপেন করা হয় তাহলে আবার পারমিশন দিতে হবে। আশা করি বুঝতে পেরেছো।

এই পারমিশন অপশনটি পরিবর্তন করার কারণে আমাদের খুবই উপকার হয়েছে।

নোটিফিকেশন থেকে স্মার্ট রিপ্লাই


বন্ধুরা এন্ড্রয়েড ফোনের আগের ভার্সন গুলো থেকে তোমরা সব সময় নোটিফিকেশন বার থেকে শুধু মেসেজ করতে পারতা। অর্থাৎ কেউ যখন মেসেজ দিতো তোমাকে তখন সেটা নোটিফিকেশন বারে আসতো। আর সেই নোটিফিকেশন বার থেকে তার মেসেজের রিপ্লাই দিতে পারতা। কিন্তু অ্যান্ড্রয়েড 11 ভার্সন এর মধ্যে এই জিনিসটা কিছু পরিবর্তন করা হয়েছে। এখন শুধু তোমরা সেই নোটিফিকেশন বারের মাধ্যমে মেসেজ নয় সাথে তোমরা ছবিও পাঠাতে পারবা। এটিও খুব চমৎকার একটি ফিচার অ্যান্ড্রয়েড 11 ভার্সনে।

তাহলে বন্ধুরা নতুন অ্যান্ড্রয়েড 11 ভার্সন সম্পর্কে তোমাদের কিরকম মতামত সেটা অবশ্যই কমেন্ট বক্সে জানাবে। আর যদি পোস্টটি থেকে নতুন কিছু জানতে পারো তাহলে অবশ্যই বন্ধুদের মাঝে শেয়ার করে দিবে।আর এই অ্যান্ড্রয়েড 11 ভার্সন এর মধ্যে আস্তে আস্তে আরো অনেকগুলো ফিচার যুক্ত করা হবে। আশা করি এন্ড্রয়েড 11 ভার্সন সবার কাছে ভালো লাগবে।

বন্ধুরা আজকে অনেক কথা বলে ফেললাম। যদি কোনো রকম ভুল হয়ে থাকে তাহলে ক্ষমার দৃষ্টিতে দেখবেন। আজ এ পর্যন্তই। সবাই ভাল থাকেন সুস্থ থাকেন।

সবাইকে অসংখ্য ধন্যবাদ।


Post a Comment

Previous Post Next Post